• সংখ্যালঘু ইস্যুতে গরম লন্ডনের রাজনীতি • আজ বৃটিশ পার্লামেন্টে বাংলাদেশ বিষয়ক বিতর্ক

0
110

imageইব্রাহিম খলিল যুক্তরাজ্য ( লন্ডন) থেকে : বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, দশম নির্বাচন ও সংখ্যালঘু নির্যাতন ইস্যুতে বৃটিশ পার্লামেন্টে বিতর্ক হবে আজ বৃহস্পতিবার । বৃটিশ পার্লামেন্টের লেবার দলীয় এমপি সাইমন ডানকায সকাল সাড়ে ১১টায় এই ইস্যুটি পার্লামেন্টে উত্থাপন করবেন। বিকেল দেড়টা পর্যন্ত প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী এই বিতর্কে অংশ নেবেন পার্লামেন্টের সকল দলের এমপিরা। পার্লামেন্ট বির্তকের পরে দুপুর ২টায় হাউজ অব কমন্সে সংবাদ ব্রিফিং করবেন সাইমন ডানকায এমপি। সংবাদ ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ বিষয়ে বৃটিশ সরকারের অবস্থান ব্যাখা করা হবে। বৃটিশ পার্লামেন্টের নিজস্ব অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বির্তকের সময়সূচি ইতিমধ্যে দেওয়া হয়েছে। জানাগেছে, এই বির্তকে অংশ নেবেন পার্লামেন্টের বাঙালী বংশোদ্ভুত এমপি রোশনারা আলী, বাঙালী অধ্যুষিত পূর্ব লন্ডনের আরেক এমপি ও সাবেক লেবার দলীয় মন্ত্রী জিম ফিজপেট্রিক। এমপি রোশনারা আলীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, বাংলাদেশে বৃটিশ বিনিয়োগ, স্বচছ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন, বিরোধী দলের রাজনৈতিক কর্মকান্ডের স্বাধীনতা ও সংখ্যালঘু নির্যাতন ইস্যুকে প্রাধান্য দেওয়া হবে র্পালামেন্ট আলোচনায়। রোশনারা আলী আরো জানিয়েছেন, বাংলাদেশের চলমান এই সহিংসতায় তার নির্বাচনী এলাকার জনগনের উদ্বেগের কথা তিনি তুলে ধরবেন। পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশীরা যাতে নিরাপদে দেশ ভ্রমন করতে পারেন সে ব্যাপারেও সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করার আহবান জানানো হবে। এদিকে বাংলাদেশে দশম জাতীয় নির্বাচন পরবর্তী সময়ে সহিংসতা ও সংখ্যালঘু নির্যাতন ইস্যুতে গরম হয়ে উঠেছে লন্ডনে বাংলাদেশী রাজনীতি। এসব ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে ইতিমধ্যে সভা সমাবেশ করেছে বেশ কয়েকটি সংগঠন। গতকাল বুধবার সংখ্যালঘু নির্যাতন বন্ধের দাবীতে ও প্রকৃত দোষীদের সনাক্ত করতে জাতিসংঘের অধিনে তদন্ত দাবী করেছে মানবাধিকার সংগঠন সেইভ বাংলাদেশ। পূর্ব লন্ডনের স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা অভিযোগ করেছেন, সংখ্যালঘুদের উপর হামলায় ক্ষমতাসীন ক্যাডাররা জড়িত। অথচ সরকার ও মিডিয়া এই দোষ বিএনপি-জামায়াতের ঘাড়ে চাপিয়ে দিচেছ। এর প্রমান হিসেবে তারা বাংলাদেশসহ বর্হিবিশ্বের বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম ও মানবাধিকার সংগঠনের বিবৃতি ও সংবাদের উদ্বৃতির কপি উপস্থাপন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, সংখ্যালঘু ইস্যুতে নিরপেক্ষ তদন্তের জন্য ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টসহ মানমাধিকার সংগঠনগুলোকে অবহিত করার উদ্যোগ নিচেছন। এসময় বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন, যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা সলিসিটর বিপ্লব পোদ্দার, হিন্দু-বৗদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা বাবু সুমন রায়, বাবু মিঠু পাল, বাবু গৌতম সাহা, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি শাইস্থা চৌধুরী কুদ্দুস, জমিয়ত নেতা মুফতি শাহ সদর উদ্দিন ও যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ মালিক প্রমুখ। এছাড়াও সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন বন্ধ ও সুস্টু বিচারের দাবীতে বুধবার সকালে বৃটিশ পার্লামেন্টের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে ক্যাম্প্যইন ফর দ্যা প্রটেকশন অব রিলিজিয়াস মাইনোরিটি ইন বাংলাদেশ নামের আরেকটি সংগঠন। সংগঠনের মুখপাত্র পুষ্পিতা গুপ্তার নেতৃত্বে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রবাসী নেতৃবৃন্দ বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরুন বরাবরে একটি স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। বিক্ষোভকারীদের সাথে কথা বলেন হাউজ অব লর্ডস মেম্বার লর্ড এ্যাবেবুরী ও জিম ফিজপেট্রিক এমপি। তারা এ সময় বিষয়টি বৃটিশ সরকারকে অবহিত করার আশ্বাস প্রদান করেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সুশান্ত সেন, সুজিত সেন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ-সাধারন সম্পাদক জামাল আহমদ খান, যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ঝলক পাল প্রমুখ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here