উড়ন্ত সিলেটকে মাটিতে নামাল খুলনা

0
6
আরবিএন রিপোর্ট

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) প্রথম হারের স্বাদ পেল সিলেট সিক্সার্স। খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে ৬ উইকেটে হেরেছে বিপিএলে চমকজাগানিয়া দলটি।  সিলেটের করা ১৩৫ রানের জবাবে খেলতে নেমে দুই ওভার ও ছয় উইকেট হাতে রেখেই জয় নিশ্চিত করল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

এবারের আসরে সিলেটের জয়রথ থামছিলই না। পরপর তিন ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে নাসির হোসেনের দল। তবে চতুর্থ ম্যাচে ভাগ্যদেবী আর সিলেটের দিকে তাকাল না। উড়ন্ত দলটাকে মাটিতে নামিয়ে আনল খুলনা

এই ম্যাচে টস-ভাগ্যটা নাসিরের পক্ষে যায়নি। টস জিতেছেন খুলনা টাইটানসের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সিলেটকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান তিনি। ব্যাট হাতে নেমে খুলনার সংগ্রহটা খুব বেশি হয়নি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৩৫ রান তুলতে সমর্থ হয় নাসির হোসেনের দল।

১৩৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি খুলনার। দলীয় ১৮ রানে নাজমুল হোসেন শান্তকে হারায় খুলনা। এর খানিক পর চ্যাডউইক ওয়ালটনও ফিরে যান ডাগআউটে। দলীয় ৪৩ রানে রিলে রুশোকে ফিরিয়ে ম্যাচে ভালোভাবে টিকে থাকে সিলেট।

এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ; ও মাইকেল কিলিঞ্জার ৫০ রানের জুটি বেঁধে খুলনার আশা জিইয়ে রাখেন। রস হুইটলির বলে মাহমুদউল্লাহ ফিরলেও বাকি পথটুকু কার্লোস ব্রাফেটকে নিয়ে ভালোভাবেই পাড়ি দেন কিলিঞ্জার। ৩৬ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত ছিলেন এই অসি ব্যাটসম্যান। অপরদিকে ১৬ বলে ২৩ রান করেন ব্রাফেট। এ ছাড়া টাইটানসের হয়ে ২৭ রান করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ভালো করতে পারেননি আগের দুটি ম্যাচে ঝড় তোলা সিলেটের ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ও উপুল থারাঙ্গা। দলীয় ১৯ রানে শফিউলের বলে মাহমুদউল্লাহকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান আন্দ্রে ফ্লেচার। চার রান করেন তিনি। এরপর সাব্বির ফিরে যান কোনো রান না করেই। দলীয় ৫১ রানে ফিরে যান উপুল থারাঙ্গা। ২৬ রান করেন তিনি।

দানুশকা গুনাথিলাকাকে নিয়ে রানের গতিটা বাড়াতে চেয়েছিলেন অধিনায়ক নাসির হোসেন। তবে খুলনার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে সেটা সম্ভব হয়নি। ২৫ বলে ২৬ রান করে মাহমুদউল্লাহর দ্বিতীয় শিকার হন গুনাথিলাকা। রিলে রুশোকেও হাত খুলতে দেননি খুলনার বোলাররা। ২৩ বলে ২৭ রান করেন এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান।

নাসির হোসেন অনেকক্ষণ ক্রিজে টিকে থাকলেও ৩৫ বলে ৪৭ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি। শেষ পর্যন্ত ১৩৪ রানেই থেমে যায় সিলেটের ইনিংস। খুলনার হয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও জফরা আর্চার নেন দুটি করে উইকেট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here