চার দিনে ২৭৫ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার : বিএনপি

0
90

আরবিএন রিপোর্ট

 

হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশের প্রিজ ভ্যানে হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেওয়া ঘটনায় গত চারদিনে ২৭৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। এর মধ্যে গতকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ৩৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, গতকাল (বৃহস্পতিবার) বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক কাজী রওনকুল ইসলাম টিপুকে শাহবাগ থেকে ওঠিয়ে নিয়েছে র্যাব। এছাড়া গতকাল আরও বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মশিউর রহমান বিপ্লব, চকবাজার থানা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম রাসেল, শাহবাগ থানা বিএনপি নেতা মো. খলিল, মতিঝিল থানা বিএনপি নেতা রানী বাবু, খিলগাঁও থানা বিএনপি নেতা আমির সর্দার, রোমান, লিংকন, ঢাকা মহানগর উত্তর রুপনগর থানা বিএনপি নেতা মো. মুক্তার হোসেন, উত্তর পশ্চিম থানা বিএনপি নেতা রহমত উল্লাহ দুলাল, তোজাম্মেল হক সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি মো. মাসুদ খানের বাসায় ‘হামলা’ চালিয়ে তাকে না পেয়ে তার ছোট ভাই রাহাত খান, দারুস সালাম থানা বিএনপি নেতা জাকির হোসেন সজীব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মোমিনুল হক, জেলা যুবদলের সদস্য শরীফ হোসেন, শেরেবাংলা নগর থানা বিএনপি নেতা আলমগীর, রুপনগর থানা বিএনপি নেতা মুক্তার হোসেন, পল্লবী থানা মহিলা দল নেত্রী সৈয়দ দিলারা কলি, মনোয়ারা বেগম, অ্যাডভোটেক সাহিদা, মোসা. শামীমা, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুল্লাহ আল মামুন, তুষার, আসলাম, স্বেচ্ছাসেবক দল কার্যালয়ের অফিস সহকারী সুমনসহ অনেক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আঞ্জুর মিরপুরের বাসভবন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি মীর হোসেন মীরু, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেল্লাল চেয়ারম্যান, দারুস সালাম থানা বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবির, দারুস সালাম থানা শাখা মহিলা দলের সভানেত্রী নাজমা কবির এবং শ্যামপুর থানা বিএনপি নেতা আ ন ম সাইফুলের বাসাসহ নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় হানা দিয়ে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ।

বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরকে ব্যাপকহারে গ্রেফতার এবং নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় লাগাতার তল্লাশির ঘটনায় দলের পক্ষ থেকে আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি এবং অবিলম্বে সরকারকে এ ধরনের হিংস্রতা থেকে সরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। একই সঙ্গে গ্রেফতার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে এ সময় বিএনপি নেতা মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সানাউল্লাহ মিয়া, বেলাল আহমেদ, আমিনুল ইসলাম, আবদুল মালেক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ৩০ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার হাজিরা শেষে বাসায় ফেরার পথে হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশের প্রিজন ভ্যান আটক তিন নেতাকে ছিনিয়ে নেয় বিএনপির নেতাকর্মীরা। ওই ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে গুলশান থেকে গ্রেফতার হন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তাকে হুকুমের আসামি করে প্রায় ৮ শতাধিক অজ্ঞাত বিএনপি নেতাকর্মীর নামের পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here