খালেদা জিয়াকে সাধারণ বন্দি হিসেবেই রাখা হয়েছে: আইজি প্রিজন

0
124

আরবিএন রিপোর্ট

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া জেলকোড অনুসারে সাধারণ কারাবন্দির মতোই আছেন বলে জানিয়েছেন কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন।

আজ রোববার দুপুরে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন এসব কথা জানান।

গত বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান। রায় ঘোষণার পর পরই কড়া নিরাপত্তার মধ্যে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে পুরান ঢাকার পুরোনো কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর পর থেকেই বিএনপি নেতারা অভিযোগ করছিলেন যে, খালেদা জিয়াকে কারাগারে ডিভিশন বা প্রথম শ্রেণির বন্দির মর্যাদা দেওয়া হচ্ছে না। গতকাল শনিবারও গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এ অভিযোগ করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ সকালে সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দাবি করেন, ‘খালেদা জিয়া কারাগারে ডিভিশনের চেয়েও বেশি সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন।’

যদিও সকালেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে জেলকোড অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ডিভিশন মঞ্জুর করেন।

কারা মহাপরিদর্শক বলেন, ‘আদালত থেকে তাঁকে ডিভিশন দেওয়া হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমগুলোতে আমরা দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু আমাদের কাছে কোনো নির্দেশনা আসেনি। এলে আমরা তাঁকে ডিভিশন অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা দিতে পারব।’

‘রায়ের সময় আদালত থেকে খালেদা জিয়ার জন্য কোনো নির্দেশনা আসেনি। তাই তাঁকে সাধারণ কয়েদি হিসেবে রাখা হয়েছে। আদালত থেকে কোনো ধরনের নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত তিনি সাধারণ কয়েদি হিসেবেই থাকবেন।’

খালেদার খাবার প্রসঙ্গে সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন বলেন, ‘সাধারণ বন্দি হিসেবেই তাঁকে খাবার দেওয়া হচ্ছে। তবে শুকনো খাবার বা ফলমূল স্বজনরা নিয়ে এলে সেগুলো অ্যালাও করা হচ্ছে।’

জেলকোডের বরাত দিয়ে এই কারা কর্মকর্তা আরো জানান, খালেদা জিয়ার জন্য প্রথম দিন একজন সেবিকা পুলিশ দিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু জেলকোডে এ ধরনের কিছু না থাকায় তাঁকে এক ঘণ্টা পর ফেরত দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here