ব্যারিষ্টার এম এ সালামের পক্ষে যুক্তরাজ্যের লোটনে প্রস্তুতি সভা

0
46

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সিলেট-৩ আসনের ভোটাররা এবার উজ্জিবীত। তারা মনে করেন, দীর্ঘদিন পর হলেও নিজেদের সন্তান পাওয়া গেছে ভোটের মাঠে। তাই ভোটের আগেই দেশে ফেরার জন্য চিন্তা করছেন তারা। এই চিন্তা থেকেই সিলেট-৩ আসনের ভোটারদের উদ্যোগে গত রবিবার লন্ডনের লোটনে পানসি রেষ্টুরেন্ট ভেরিপার্ক রোডে প্রস্তুুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রস্তুতি সভায় বিএনপি’র আন্তর্জাতিক সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার এম এ সালামের পক্ষে কাজ করার জন্য সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়।

প্রস্তুুতি সভায় সিলেট-৩ আসনের বিভিন্ন গ্রামের নাগরিক যারা লোটনে অবস্থান করছেন তারা স্বতস্ফুর্তভাবে অংশ নেন। বক্তরা বলেন, দীর্ঘদিন পর হলেও নিজেদের সন্তান পাওয়া গেছে। এতদিন এই আসনটি টাকার কাছে জিম্মি ছিল। ভোটারদের কোন মর্যাদা ছিল না। পুরাতন প্রার্থীকে কখনো রাজনীতির মাঠে দেখা যেত না। নির্বাচন এলেই তিনি এলাকায় এসে সক্রিয় হতেন। বাকী সময় তাঁর কোন খোজ থাকত না। বিগত ১২ বছরে তাঁকে কোথায়ও রাজনীতির মাঠে দেখা যায়নি। দলের নেতাকর্মীদের দু:খ কষ্টে তাঁকে কখনো কাছে পাওয়া যায়নি। বরং তাঁর কাছে কেউ বিষয়টি উত্থাপন করলে বলা হত, টাকা দিয়ে মনোনয়ন কেনেন। সুতরাং ভোট আসলে টাকা দিয়েই মনোনয়ন এবং দলীয় প্রতীক বরাদ্দ হবে, এই নিয়ে তিনি দাম্ভিকতা করতেন। এইবার ব্যারিষ্টার এম এ সালামকে মনোয়ন দেওয়া হলে সিলেট-৩ আসনের ভোটারদের আর টাকার কাছে জিম্মি হতে হবে না। ভোটাররা তাদের নিজেদের সন্তানকে ভোট দিতে পারবেন। সুখে দু:খে তাঁর কাছে সহজে পৌছাতে পারবে ভোটাররা। তাই সকলের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত একটাই ব্যারিষ্টার এম এ সালামের সালামের মনোনয়ন চুড়ান্ত হলে দেশে ফিরবেন সকলে। এলাকায় গিয়ে এম এ সালামের পক্ষে বিজয়ের লক্ষ্যে সবাই আত্মনিয়োগ করবেন।

হাজী মুহাম্মদ ফরমান আলীর সভাপতিত্বে ও গাজী মুহাম্মদ বকুল মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রস্তুুত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মো: পাভেল, আবদুল হাই, গাজী আবদুল কাদির, মনসুর আহমদ রুবেল, হাজী নুরুল ইসলাম, মো: ফরিদ উদ্দিন, গাজী আবদুল জব্বার, আবদুল মুনতাকি জুনেদ, মো: আলী, লুৎফর রহমান, গাজী বকুল মিয়া, জাহাঙ্গির হোসাইন, রেজা নূর সহ শতাধীক লোক উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here