ডিবি পরিচয় দিয়ে নিয়ে যাওয়া রবিউলের সন্ধান চায় পরিবার

0
15


আরবিএন রিপোর্ট

ডিবি পরিচয়ে নিয়ে যাওয়ার পর আর ফিরেনি অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট রবিউল আওয়াল। তাঁর সন্ধান চেয়ে আজ সংবাদ সম্মেলনের করেন স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের পক্ষ থেকে রবিউলকে ফেরত দেওয়ার দাবী জানান। সংবাদ সম্মেলনে পাঠ করা লিখিত ব্ক্তব্যাটি হুবহু দেওয়া হল।

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম
সুপ্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা, আস্সালামু আলাইকুম। আমি মোসাঃ খাদিজা আক্তার (২৪), আমার সাথে রয়েছেন আমার শশুর ও শাশুড়ি। আপনাদের সামনে আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে বিস্তারিত বক্তব্য তুলে ধরছি, আমার স্বামী মোঃ রবিউল আউয়াল (২৫) একজন অনলাইন এক্টিভিস্ট। মূলত তিনি লেখালেখির সাথে জড়িত ছিলেন। আমাদের জানামতে তিনি রাষ্ট্র বা সমাজ বিরোধী কোনো কাজের সাথে কখনোই জড়িত ছিলেন না।

গত নভেম্বর মাসের ২৬ তারিখ দিবাগত রাতে আমাদের বাসার ক্যাবল অপারেটর আমার স্বামী মোঃ রবিউল আউয়াল সোহাগকে (২৫) ফোন দিয়েছিলেন। পরক্ষণে আমার স্বামীকেসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন রাত আনুমানিক ১১ তার দিকে বাসায় আসেন ,তারপর আমার স্বামীকে আমাদের বাসার নিচে রেখে আমাদের ফ্ল্যাটে ডিবি পরিচয় দিয়ে বাসা থেকে ল্যাপটপ, কম্পিউটারসহ অনলাইন সংক্রান্ত অন্যান্য দরকারি জিনিসপত্র নিয়ে যান। এরপর আমরা আমাদের নিকটবর্তী থানায় গিয়ে সাধারণ ডায়েরি করি, ডায়েরি নাম্বার হলো- ১৮০০।

যাহার অনুলিপি আপনাদেরকে সরবরাহ করা হলো, তারপর আমরা সদর দক্ষিণ মডেল থানা, কুমিল্লায় যোগাযোগ করতে থাকি। আমাদেরকে মৌখিকভাবে বলা হয়েছিল ৫ তারিখ এর মধ্যে একটা খবর পাওয়া যাবে। এর মধ্যে গতকাল কেও আমরা ডিবি অফিস ও র্যাব অফিস এ খবর নেই। কিন্তু তারা বলেন এরকম কোনো লোককে আনা হয়নি। এমতাবস্থায় আপনাদের নিকট আমাদের আকুল আবেদন, দয়া করে আমার স্বামীকে ফিরে পেতে আপনারা সাহায্য করুন।

আমি সকল মানবাধিকার সংগঠনসহ সকল অনলাইন, প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া কর্মীদের সহযোগিতা কামনা করছি। আমার জানামতে আমার স্বামী কোনপ্রকার রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকান্ড বা কোন অপরাধচক্রের সাথে জড়িত নন। প্রকাশ্য দিবালোকে একজন মানুষকে এভাবে তুলে নিয়ে আবার অস্বীকার করা মানবাধিকার ও আইনের শাসন পরিপন্থী বলে আমি মনে করি। অবিলম্বে তার সন্ধান সহ নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি। আমার স্বামী আমাদের পুরো পরিবারের একমাত্র আয়ের উৎস ছিলেন, আমার একমাত্র শিশুসন্তানের (০২) বাবা।

আমার স্বামী যদি আমাদের অজান্তে কোন প্রকার অপরাধ করেও থাকে তাহলে আইন মোতাবেক আদালতে হাজির করে বিচার করা হোক। একজন নাগরিককে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আদালতে হাজির করা এটা সাংবিধানিক নিয়ম। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্টমন্ত্রী, র্যাব, পুলিশসহ সকলের নিকট আকুল আবেদন করছি, দয়া করে আমার স্বামীকে ফেরত পেতে সাহায্য করুন।

খাদিজা আখতার ০৬.১২.২০১৮

Bismillahir Rahmanir Raheem

Dear brothers and sisters, Aslamualaikum

 

I am Moussammed Khadiza Akhter (24), my father-in-law and my mother-in-law are with me. I am delivering detailed statements from our family about him, my husband Md. Rabiul Awal Sohag (25) is an online activist, basically he was involved in writing. In our knowledge, he never involved in any anti-state or anti-social work.

 

Last night on the 26th of November, internet operator of our house made a call to my husband Md. Rabiul Awal Sohag (25). Later on, law Enforcement Agencies came to our flat including my husband at around 11 pm, then put my husband under our house and took the laptop, computer and other online related information from home with the introduction of DB in our flat. Then we went to our nearest police station and made a general diary, Diary Number is – 1800.

 

The copy of which was supplied to you, then we contacted the Sadar South Model Police Station, Comilla. We were told verbally to get a news on 5th of the December,18. In the meantime, we were trying hard to reach to DB office and RAB office but repeatedly they told us that such an incident did take place and they do not have any idea on it hence they said no such person was brought.

 

Therefore, my humble request is to you please help me get back to my husband for which I expect to all the online, print media and electronic media workers including all human rights organizations. In my knowledge, my husband is not involved in any anti-state activities or any crime scene. I think by refuting a man in public in such a way, it is contrary to human rights and rule of law. Therefore, I strongly demand Immediately unconditional release of my husband. My husband was the sole source of income for our whole family, my only child (2) is eagerly waiting for his getting back, Parents are waiting for their son.

However, if my husband even commits any kind of crime without our knowledge, then he should be produced before the court according to the law. It is constitutional rules to present a citizen in court within 24 hours after being arrested by law and enforcement agencies. Finally, I appeal to the honorable Prime Minister, the Honorable Minister, the RAB, and everyone including the police, please kindly do me a favor to get back my husband.

Khadiza Akhter

06.12.2018

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here